আজ ১৯শে আগস্ট ২০১৭, ৪ঠা ভাদ্র ১৪২৪, ২৮শে জিলক্বদ ১৪৩৮

আর এক চোর ও প্রতারকের কাহিনী

এপ্রিল ২৫, ২০১৭

কক্সবাজারের বিবাহ প্রতারক আনোয়ার পারভেজের কথা আমার লেখার মাধ্যমে আপনারা সবাই জেনেছেন। এবারে কক্সবাজারে পাওয়া গেছে আর এক প্রতারকের সন্ধান। প্রতারক কাজল (ভালো নাম আরিফ)

ফেসবুকে এই সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। যা এখানে হুবহু তুলে ধরে হলো।

একটি জরুরী বিজ্ঞপ্তিঃ

কক্সবাজারের একটা ছেলে মালয়শিয়াতে আমার মালয়শিয়ান বান্ধবী অ্যানের নিকট হতে বেশ কয়েকশো রিঙ্গিত নিয়ে আসে আমার নাম করে। কয়েক মাস পর অ্যানের কাছে এই ঘটনা শুনে অনেক কষ্টে ছেলেটির সাথে যোগাযোগ করে ঘটনার সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হই। এখন ওই ছেলেটি আর ফোন রিসিভ করছে না। আমার বান্ধবী বা আমাকে রিঙ্গিত ও ফেরত দিচ্ছে না। ব্যাপারটি খুবই বিব্রত করছে আমাকে। বন্ধুরা, যারা আমার এই স্ট্যাটাস পড়বেন প্লিজ সবাই ওকে ফোন করে আমার বান্ধবীকে রিঙ্গিত ফেরত দিতে বলে বাধিত করবেন। ছেলেটির বিস্তারিত,

নামঃ কাজল ( ভালো নাম আরিফ)
পিতাঃ আহমেদ হোসেন, বাড়ি কক্সবাজার।
বর্তমানে সৌদি প্রবাসী।
কাজলের ফোন নাম্বার : 006 016 351 4679 ( মালয়শিয়া )
পিতা, আহমেদ হোসেন, ফোন ; 009 665 036 383 24 ( সৌদি আরব )

বাংলাদেশের চট্রগ্রাম ও কক্সবাজার এলাকার মানুষেরা লোভী হয়। সেজন্য এই অঞ্চলে যৌতুক প্রথা মাছ দিয়ে ভাত খাবার মত একটি স্বাভাবিক ব্যাপার। এই অঞ্চলে কিছু দূর পর পর একটা করে পাহাড় আর পাহাড়ে চূড়াতে আছে ভন্ড পীর ফকির আর চোর, ডাকাত ও প্রতারকের আস্তানা। এই অঞ্চলের লোকেরা তাদের অপরাধ ঢাকার জন্য “ইসলাম” এর অপব্যবহার করে। মেয়েরা সব হিজাব পড়ে ছেলেরা সব যৌতুক নিয়ে বিয়ে করে অথবা বিভিন্ন দেশে যেয়ে সুযোগ বুঝে প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের টাকা মেরে দিয়ে পালিয়ে যায়।

প্রথমে ভাল মানুষের অভিণয় করে। কথায় কথায় আল্লাহ্‌ খোদা রাসুল টেনে আনে । ভাবটা এমন যেন ফেরেস্তাগুলা সব আল্লাহ্‌পাকে চট্রগ্রামেই পয়দা করে রাখছে। তারপর ছিলা শুরু করে। চট্রগ্রাম-কক্সবাজার এর প্রতারকদের বিশ্বাস করলেই শুরু হবে ভোগান্তি। কাজল মালয়েশিয়াতে যে এ্যানের টাকা মেরে দিয়েছে সেই এ্যানের জানার কথানা চট্রগ্রাম কক্সবাজারের মানুষের লোভ, প্রতারণা, ও ফাঁদের কথা।

বিদেশী একটা মেয়ে। কক্সবাজারের প্রতারকের মিথ্যা কথাই বিশ্বাস করেছে। টাকা দিয়েছে। এখন ভুগছে। দেশে আইন নেই। এই খবর পাঠ করেই অনেকেই হয়তো কাজলকে খুজছে মেয়ের সাথে বিয়ে দেবার জন্য । কারণ  প্রতারক, মিথ্যুক,  চোর, ডাকাত, খুনী, ধর্ষকেরা বাংলাদেশে সমাদৃত। সবাই চোরেদের ছেলেমেয়েকে বিয়ে করার জন্য জমি বিক্রি করে দেয়। চট্রগ্রাম-কক্সবাজার লোভী, মিথ্যুক, ও প্রতারকের জন্য বিখ্যাত।

এই প্রতারকরে যদি কেউ দ্যাখেন তাহলে আপনার বোন বা মেয়ের সাথে বিয়ে দিয়ে দিবেন যাতে সে প্রতারণা করে বিদেশীদের কাছ থেকে টাকা এনে আপনার বোন বা মেয়েকে খাওয়াতে পারে।

সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯৬৫ বার

( বি: দ্র: প্রবাস নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত প্রবাস নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ

x
সর্বশেষ