আজ ১২ই ডিসেম্বর ২০১৭, ২৮শে অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৫শে রবিউল-আউয়াল ১৪৩৯

আমাদের সঙ্গে লাগতে এসো না

নভেম্বর ৯, ২০১৭

উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই ম্যারাথন এশিয়া সফরে বের হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ সফরে উত্তর কোরিয়াকে চাপে রাখাসহ বেশ কয়েকটি ইস্যু হাতে রয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্টের। এরই মধ্যে পিয়ংইয়ংকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে ছোট করে দেখার কোনো সুযোগ নেই তাদের, আর লাগতে এলে তার ফলও ভালো হবে না। স্থানীয় সময় গত বুধবার সিউলে দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্টে প্রদত্ত এক বক্তৃতায় এ হুমকি দেন ট্রাম্প। ৩৫ মিনিটের বক্তৃতায় ট্রাম্প বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রশাসন আগেরগুলোর থেকে অনেক আলাদা। আমাদের ছোট করে দেখার কোনো অবকাশ নেই। আমাদের সঙ্গে লাগতে এসো না। ক্ষমতার হিসাব-নিকাশে উত্তর কোরিয়া মারাত্মক ভুল করছে বলে উল্লেখ করেন ট্রাম্প। দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, যে অস্ত্রগুলো আপনি দখলে আনছেন, তা আপনাকে মোটেও নিরাপদ করবে না। সেগুলো বরং আপনার দেশকে বিপদের মুখে ফেলছে। এই অন্ধকার পথে আপনি যতই পা বাড়াবেন, ততই আপনার বিপদ বাড়বে। উত্তর কোরিয়া, আপনার দাদার দেখা সেই স্বপ্নের দেশ না। এটি একটি জাহান্নাম, যেটি কারো নয়। বক্তৃতায় ট্রাম্প বলেন, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে। দক্ষিণ কোরিয়ার অর্থনৈতিক সাফল্যই প্রমাণ করে, উত্তর কোরিয়ার সব প্রচেষ্টা ব্যাহত হয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সফরের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে দক্ষিণ কোরিয়ায় পা রাখেন ট্রাম্প। এর আগে জাপান ভ্রমণ করেন তিনি। সফরের অন্য দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে চীন, ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইন। অপর এক খবরে বলা হয়, পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে আলোচনায় বসার আহŸান জানানোর একদিন পরই ফের পিয়ংইয়ংয়ের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়ার দুর্বৃত্ত শাসন গুরুতর বিপদের মধ্যে আছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। গত বুধবার দক্ষিণ কোরিয়ার পার্লামেন্টে দেওয়া ভাষণে ট্রাম্প এ মন্তব্য করেন বলে বিবিসি জানিয়েছে। ভাষণে যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্রদের সামরিক সক্ষমতা সম্পর্কেও পিয়ংইয়ংকে সতর্ক করেন তিনি। উত্তর কোরিয়ায় দীর্ঘকাল ধরে চলা সামরিক শাসনের সমালোচনা করেন ট্রাম্প। দেশটির নেতা কিম জংকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনার দাদার (কিম ইল-সাং, উত্তর কোরিয়ার প্রতিাতা) কল্পনার স্বর্গ নয়, উত্তর কোরিয়া এখন এমন একটি নরক, যেখানে কেউ যেতে চায় না। বিবিসি জানায়, পার্লামেন্টে ভাষণ দেওয়ার আগে ট্রাম্প এক আকস্মিক সফরে দক্ষিণ ও উত্তরের মধ্যবর্তী ডিমিলিটারাইজ জোনে যাওয়ার পরিকল্পনা করেন। সিএনএন।

সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪২ বার

( বি: দ্র: প্রবাস নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত প্রবাস নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ

x
সর্বশেষ