আজ ১২ই ডিসেম্বর ২০১৭, ২৮শে অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৫শে রবিউল-আউয়াল ১৪৩৯

সরকারী গাড়ি সহ সিটি কর্পোরেশনের গাড়ি দিয়েই শোভাযাত্রা, অতিষ্ঠ সাধারণ জনতা।

নভেম্বর ২৫, ২০১৭

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ  ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়া উপলক্ষে আজ শনিবার (২৫ নভেম্বর) রাজধানীসহ সারাদেশে আনন্দ শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে সরকার। আজ বেলা ১২টায়  ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শুরু হবে। শোভাযাত্রায় অংশ নিতে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ জড়ো হতে শুরু করেছে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা জড়ো হয়েছেন সেখানে।

রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল-কলেজ, সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে দলে দলে আসছে। মিরপুর রোডের বিভিন্ন জায়গায় রাস্তার দুই পাশে তাদেরকে ব্যানার হাতে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। শোভাযাত্রার জন্য হাতি আনা হয়েছে। এছাড়া দক্ষিণ,উত্তর সিটি করপোরেশনের ট্রাকগুলো ফুল, ব্যানার দিয়ে সাজানো হয়েছে।থাকছে সরকারী গাড়িও

শোভাযাত্রার জন্য হাতিও আনা হয়েছে

ছবি- বাংলা ট্রিবিউন

দাউপিয়া হামিদিয়া সুন্নিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিখানার ছাত্র এনামুল হক বিজয় বলেন, ‘৭ মার্চের ভাষণ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেওয়ায় আজকে শোভাযাত্রায় অংশ নিতে সরকার দলিও লোকজন চাপ দিচ্ছিল, তাই বাধ্য হয়ে আমরা ৩২ নম্বরে এসেছি। আমাদের সঙ্গে আমাদের হুজুরও এসেছেন।’

শোভাযাত্রায় অংশ নিতে এসেছেন রেডক্রিসেন্ট অ্যান্ড হলি ফ্যামিলির কর্মকর্তা বজলুর রহমান। তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ আমরা সাতবন্ধু মিলে সোহরাওয়ার্দীতে বসেই শুনেছি। আমাদের এক বন্ধু মারা গেছেন। বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণ আমাদের জীবনের অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে। তার এই ভাষণ স্বীকৃতি পাওয়ায় আমরা আনন্দিত। এই স্বীকৃতি বাংলাদেশকে অন্যতম উচ্চতায় নিয়ে গেছে।’

ডিএনসিসির ট্রাক সাজানো হয়েছে শোভাযাত্রার জন্য

ছবি- বাংলা ট্রিবিউন

পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের অফিস সহকারী হাফিজা বেগম বলেন, ‘শনিবার আমাদের এমনিতেই ছুটি থাকে।কিন্তু চাকুরীর ভয়ে আমরা আসতে বাধ্য হয়ে এসেছি।

দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণভাবে এই কর্মসূচি উদযাপনের জন্য র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও ভিডিপিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্কাবস্থায় থাকবে। এদিকে সব জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যদিয়ে সকাল ১০টায় অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

ছবি- বাংলা ট্রিবিউন

সব জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের তথ্য মন্ত্রণালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতর কার্যালয়, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদফতর কার্যালয় এই অনুষ্ঠান তদারকি করবে। বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতারে বিশেষ অনুষ্ঠান সম্প্রচার ও সংবাদপত্রে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য,গত ৩০ অক্টোবর ইউনেস্কো ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেওয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।

সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫১ বার

( বি: দ্র: প্রবাস নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম -এ প্রকাশিত প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, রেখাচিত্র, ভিডিও, অডিও, কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। কপিরাইট © সকল সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত প্রবাস নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম )

আপনার ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে মতামত প্রদান করতে পারেনঃ

x
সর্বশেষ